ড্রোনের মাধ্যমে পণ্য সরবরাহ করার পরিকল্পনা শুরু করেছিল।হয়তো কয়েক বছরের মধ্যে ড্রোনই হবে পণ্য পরিবহণের প্রধান বাহন। আর তাই আগে থেকেই পরিকল্পনা করে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র।ড্রোনের জন্য এয়ারপোর্ট বানাচ্ছে তারা। এয়ারপোর্টটির নাম দেওয়া হয়েছে এলডোরাডো ড্রোনপোর্ট।দেশটির নেভাডা অঙ্গরাজ্যের সিটি অফ বোল্ডার গড়ে তোলা হচ্ছে এয়ারপোর্টটি।

এয়ারপোর্টটি তৈরিতে কাজ করছে ড্রোন চালানোর প্রশিক্ষণ দেওয়া মার্কিন প্রতিষ্ঠান অ্যারোড্রোম।ড্রোন ভিন্ন ধরণের আকাশযান বলে এটি চালানো ও ব্যবস্থাপনা ভিন্ন হওয়া উচিৎ বলে এমন পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে জানিয়েছেন অ্যারোড্রোম প্রেসিডেন্ট।

অ্যারোড্রোম জানিয়েছে বাণিজ্যিক কাজে ড্রোন ব্যবহার করা প্রতিষ্ঠানগুলোর চালকদের প্রশিক্ষণ, ড্রোন রক্ষণাবেক্ষণ ও প্রযুক্তিগত বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগিতা করবে এয়ারপোর্টটি।আরো তিনটি অঙ্গরাজ্যে ড্রোন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।৫ একর জায়গায় তৈরি করা হচ্ছে এয়ারপোর্টটি। তিন বছরের মধ্যে এয়ারপোর্টটি নির্মাণ কাজ শেষ করার লক্ষ ঠিক করা হয়েছে।