কয়েক বছর ধরেই ব্ল্যাকবেরি অপারেটিং সিস্টেম জনপ্রিয়তা হারাতে বসেছে। বর্তমানে আরও পিছিয়ে পড়ছে ব্ল্যাকবেরি।এমনকি ব্ল্যাকবেরি অপারেটিং সিস্টেমকে (ওএস) ছাড়িয়ে চতুর্থ স্থানে উঠে এল স্যামসংয়ের তৈরি টাইজেন অপারেটিং সিস্টেম।বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান স্ট্র্যাটেজি অ্যানালাইটিকসের(ডব্লিউএসএস) সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে।

 

স্ট্র্যাটেজি অ্যানালাইটিকসের ওয়্যারলেস স্মার্টফোন স্ট্র্যাটেজির প্রতিবেদন বলছে, বার্ষিক হিসাবে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। এ ছাড়া নতুন আইফোন বাজারে আসায় অ্যাপলের আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের বাজার দখলও বাড়ছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্ল্যাকবেরির মতো উইন্ডোজ ফোন, মজিলা ফায়ারফক্স ওসের বাজার দখল কমছে।

 

এ বছরের তৃতীয় প্রান্তিক, অর্থাৎ জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর—এই তিন মাসে ব্ল্যাকবেরিকে পেছনে ফেলেছে স্যামসঙয়ের নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেমটি। বর্তমানে স্যামসঙয়ের কিছু মোবাইল ফোন ও স্মার্টওয়াচে টাইজেন ব্যবহৃত হচ্ছে।

 

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমচালিত সেট তৈরির দিকে ঝুঁকে পড়েছে ব্ল্যাকবেরি। প্রিভ নামের অ্যান্ড্রয়েডচালিত প্রথম স্মার্টফোন বাজারে আনছে প্রতিষ্ঠানটি। ব্ল্যাকবেরির তৈরি ব্ল্যাকবেরি ওএস-চালিত সর্বশেষ স্মার্টফোনটি ছিল ব্ল্যাকবেরি লিপ, যা এ বছরের মে মাসে বাজারে ছাড়া হয়। এর আগে সেপ্টেম্বর মাসে স্যামসাং দাবি করে, ভারতের বাজারে অ্যান্ড্রয়েডের পরে দ্বিতীয় জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে বাজার দখল করেছে টাইজেন।বাজার গবেষকেরা মনে করেন, সাশ্রয়ী স্মার্টফোনের বিভাগে টাইজেনের উত্থানের কারণ হচ্ছে, গুগল ও উইন্ডোজ ফোনের বাইরে তেমন কোন অপশন আর গ্রাহকের হাতে নেই।

 

স্যামসাং সম্প্রতি ভারতের বাজারে টাইজেনচালিত জেড ৩ নামের স্মার্টফোন ছেড়েছে। এর আগে চলতি বছরের জুলাই মাসে স্যামসাং জানায়, জেড ১ নামের স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার ছয় মাসের মধ্যে ভারতের বাজারে ১০ লাখ ইউনিট বিক্রি হয়। বাংলাদেশের বাজারেও গত ৩ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে টাইজেনচালিত জেড ১ স্মার্টফোনের ঘোষণা দেয় স্যামসাং। বাংলাদেশের বাজারে এক সপ্তাহের কম সময়ে ২০ হাজার ইউনিটের বেশি বিক্রি হয়। জেড ১ হচ্ছে টাইজেনচালিত প্রথম স্মার্টফোন। এই অপারেটিং সিস্টেমে দ্রুত ওয়েব ব্রাউজ করা যায় এবং এর ইউজার ইন্টারফেস খুব সরল। এই সেটটিতে বিশেষ প্রিমিয়াম কনটেন্ট যুক্ত করেছে স্যামসাং। ৬ হাজার ৯০০ টাকা দামের এই স্মার্টফোনটিতে থাকছে ৪৮০ বাই ৮০০ পিক্সেল রেজুলেশনের চার ইঞ্চি ডিসপ্লে, পেছনে ৩.২ মেগাপিক্সেল ও সামনে ভিজিএ ক্যামেরা। ১.২ গিগাহার্টজ প্রসেসরের এই স্মার্টফোনটিতে র‍্যাম ৭৬৮ এমবি। দুই সিম সুবিধার এই স্মার্টফোনটিতে থ্রিজি, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ সুবিধাও রয়েছে।