সবার সাধ্যের মধ্যে এখন ট্যাব চলে আসছে। এমন প্রকল্পই হাতে নিয়েছে ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজন।

৬ ইঞ্চি পর্দার এ ট্যাবলেটটি খুব শিগগিরই বাজারে আসছে। প্রাথমিকভাবে নতুন ট্যাবলেটের দাম ৫০ ডলার বলা হলেও বাজারে যখন আসবে, তখন সেটির দাম কত হয় তা নিয়েও রয়েছে প্রশ্ন। কারণ, এর আগের ৯৯ ডলার মূল্যের ট্যাবলেটটি গ্রাহকদের কিনতে খরচ করতে হয়েছে ১১৪ ডলার। তবে দামের সঙ্গে মিলিয়ে পর্দা, ব্যাটারির অবস্থা ইত্যাদিও কতটা মানসম্পন্ন হবে, সেটিও কেনার আগে গ্রাহকদের ভেবে দেখার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

৬ ইঞ্চি পর্দাতেই থেমে থাকছে না আমাজন। ধারণা করা হচ্ছে, পরবর্তী সময়ে ৮ এবং ১০ ইঞ্চি পর্দারও ট্যাবলেট বাজারে আনতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। দামের ব্যাপারেও চমক থাকবে বলে আভাস দিয়েছেন আমাজন কর্তৃপক্ষ।

 

তবে ট্যাবের মানের প্রতি কোন বৈষম্য করা হয়নি বলেই জানিয়েছেন অ্যামাজন কর্তৃপক্ষ।  নির্দিষ্টভাবে একদল গ্রাহকের কথা মাথায় রেখেই এ দামের ট্যাবলেটটি বাজারে নিয়ে আসছে বলে জানিয়েছে অ্যামাজন।

 

তবে মাত্র ৫০ ডলারের আমাজনের ট্যাবলেটের ঘোষণায় প্রযুক্তি বাজার বিশেষজ্ঞরা স্বাগত জানিয়েছেন। তাঁদের মতে, বিষয়টি প্রতিযোগিতার, তারপরও এত কম মূল্য হওয়ায় এর চাহিদা বাড়বে। ইতিমধ্যে ট্যাবলেট তৈরির কাজটি চীনের সাংহাই হুয়াকিন টেলিকম টেকনোলজি এবং তাইওয়ানের কমপাল কমিউনিকেশনসকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গেছে।