ব্যবসায়ীক কাজে প্রায় সব ব্যবসায়ীদেরই দেশ বিদেশের বিভিন্ন যায়গায় যেতে হয়। বিশেষ করে যাদের বিদেশিদের সাথে পার্টনারশিপে করে ব্যবসা করতে হয় তাদেরতো বছরের অর্ধেক সময় জুড়ে প্লেনে প্লেনেই কাটাতে হয়।তাই ব্যবসায়ীদের বলছি প্লেনেই যান কিংবা বাস-ট্রেনেই যান, বিজনেস ট্রাভেল করার আগে এসডি এশিয়ার দেয়া দশটি টিপস পড়ে নিতে পারেন।

 

১।ভ্রমণের আগে ক্রেডিট কার্ড কোম্পানিকে ফোন দিয়ে রাখতে পারেন,

বিজনেস ট্রিপের সময় ক্রেডিট কার্ড সংক্রান্ত যে কোন ধরণের ঝামেলা এড়াতে আগে থেকেই ক্রেডিট কার্ড কোম্পানিকে ফোন দিয়ে রাখতে পারেন।

 

২। স্টাইল নয়, আরামদায়ক পোশাক পড়ুন

খুব বেশী রঙিন,আঁটসাঁট, চকচকে কাপড় না পড়ে আরাম দায়ক হালকা পোশাক পরিধান করতে হবে। কারণ অনেক দুরের ভ্রমণের সময় আঁটসাঁট পোশাক অস্বস্তির কারণ হতে পারে।

 

৩। মেটাল সামগ্রী পড়া থেকে বিরত থাকতে হবে

201504013rldOpeningDay12-11-300x200

প্লেনে ভ্রমনের সময় অবশ্যই সব মেটাল পণ্য খুলে চেকপোস্ট পার হতে হয়। তাই অনাকাঙ্ক্ষিত সময়ক্ষেপণ এড়াতে মেটাল পণ্য পরিহার করা উচিৎ।

 

৪। মাঝারি মানের লাগেজ ব্যবহার

সব জিপার কাজ করে, পরিপাটি এবং মাঝারি মানের লাগেজ ব্যবহার করাই বুদ্ধিমানের কাজ। এতে করে সব প্রয়োজনীয় জিনিষ রাখাও যাবে, সেই সাথে গোছানোও থাকবে।

 

৫। লাগেজ চিহ্নিত করে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে

url1-300x199

কোন চিহ্ন কিংবা আগে থেকেই উজ্জ্বল রঙের দড়ি দিয়ে রাখলে সহজেই নিজের লাগেজ খুঁজে বের করতে পারবেন। লাগেজের ভেতর বিজনেস কার্ড, ঠিকানা, ফোন নম্বর রেখে দিতে পারেন। কারণ এতে করে লাগেজ হারিয়ে গেলেও খুঁজে পেতে পারবেন।

 

৬। যতটা সম্ভব কম জিনিসপত্র বহন করুন

লাগেজ এবং জিনিসপত্রের পরিমাণ যতটা সম্ভব কম নেয়া যায় ততই ভাল। এতে করে ফিরতি পথে সব জিনিস গুছিয়ে আনতে সহজ হবে।

 

৭। ছোট ব্যাগে বেশী প্রয়োজনীয় জিনিস

সাবান,ছোট টুথপেস্ট, টুথব্রাশ, সাবান, শেভিং জিনিসপত্র যেগুলো খুব বেশী দরকার হয়, সেগুলো একসাথে ছোট আরেকটি ব্যাগে রাখতে পারেন।

 

৮। তালিকা বা চেক লিস্ট করুন

inbox_folders-300x152

সব কিছু গোছানোর পর একটি তালিকা তৈরি করুন। ফিরতি পথে তালিকা দেখে ব্যাগে গুছিয়ে আনতে সুবিধা হবে।

 

৯। পকেট সহ পোশাক পরিধান করতে হবে

পকেট বেশী আছে এমন পোশাক পড়ে ভ্রমণ করা বেশী সুবিধার। এতে করে কলম, কাগজ, মোবাইল কিংবা এয়ারফোনের মত ছোট জিনিষগুলো পকেটেই বহন করা যাবে সহজে।

 

১০। ইমারজেন্সি কিট রাখতে পারেন

পেইন কিলার, পেরাসিটামল, ফাস্ট এইড বক্স সাথে রাখতে পারেন। দেখা যাবে প্রয়োজনের সময় ছোট এই পদক্ষেপ অনেক কাজে আসে।

 

ব্যবসা সংক্রান্ত কিংবা বিভিন্ন বিষয়ে এমন আরও উপদেশ পেতে চোখ রাখুন এসডি এশিয়ার সাইটে। আপনাদের মতামত এবং টিপস জানাতে পারেন টুইটার অ্যাকাউন্টেও @sdasiaco @tousifalamafc

Tousif Alam